অস্ট্রেলিয়াতে

যেকেউ অবৈধভাবে নৌকাতে করে অস্ট্রেলিয়াতে আসতে চেষ্টা করলে তাকে ঘুরিয়ে দেয়া হবে অথবা তার নিজের দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

অস্ট্রেলিয়াতে অবৈধভাবে যেকেউ আসার চেষ্টা করলে তার জন্য অস্ট্রেলিয়ার সীমান্ত বন্ধ, এবং তা বন্ধই থাকবে।

অস্ট্রেলিয়াতে অবৈধভাবে আসার চেষ্টা করলে কোনো রকমের আর্থিক সুবিধা পাওয়া যাবে না।

মানুষ পাচারকারীদের মিথ্যায় আপনার পরিবার বা বন্ধুদেরকে বোকা হতে দেবেন না।

মানুষ পাচারকারীরা তাদের টাকা নিয়ে নেবে এবং আপনার পরিবার বিপদে পড়ে যাবে।

অবৈধভাবে নৌকাতে করে অস্ট্রেলিয়াতে আসতে চেষ্টা করলে অস্ট্রেলিয়াতে কখোনোই স্থায়ী হওয়া যাবে না।

অপারেশন সোভেরিন বর্ডারস

অস্ট্রেলিয়ান সরকার উপকূলবর্তী মানুষ পাচার, সমুদ্রে মানুষদের জীবন নাশ এবং অস্ট্রেলিয়ার সীমান্ত সুরক্ষায় কঠিন সীমান্ত সুরক্ষা ব্যবস্থার বাস্তবায়ন করেছে। অস্ট্রেলিয়াতে নৌকায় করে অবৈধভাবে প্রবেশের চেষ্টাকারী কাউকে কখনই অস্ট্রেলিয়াতে বসবাসের সুযোগ দেয়া হবে না।

This poster represents the 'you will be turned back' policy. The poster directs the reader to www.australia.gov.au/novisa

অপারেশন সোভেরিন বর্ডারস – এর অধীনে অস্ট্রেলিয়াতে নৌকায় করে অবৈধভাবে প্রবেশের চেষ্টাকারী সবাইকে তারা যে দেশ থেকে এসেছেন সে দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

যারা নৌকায় করে অবৈধভাবে ভ্রমণ করবেন তাদের কখনই অস্ট্রেলিয়াতে স্থায়ী হবার সুযোগ দেয়া হবে না।

এই নিয়ম সবার জন্য প্রযোজ্য; পরিবার, শিশু, সঙ্গীহীন শিশু, শিক্ষিত ও দক্ষ। এর কোনও ব্যতিক্রম নেই।

শি􀇖শালী ও িনরাপদ সীমাে􀈴র ১০০০ িদন

আপনার টাকা নষ্ট করবেন না – মানুষ পাচারকারীরা মিথ্যা বলছে

মানুষ পাচারকারীদের টাকা দিয়ে আপনার পরিবার এবং বন্ধুদের নিরাপত্তার ঝুঁকি নেবেন না। যদি আপনার পরিবার এবং বন্ধুরা ভিসা ছাড়া নৌকায় করে অস্ট্রেলিয়াতে ভ্রমণ করেন তাহলে তাদেরকে অস্ট্রেলিয়াতে বসতি স্থাপন করতে দেয়া হবে না।

তাদেরকে রেফিউজি হিসেবে গ্রহণ করা হলেও তারা অস্ট্রেলিয়াতে স্থায়ী বসতি স্থাপন করতে পারবেন না।

মানুষ পাচারকারীদের থামাতে এবং সমুদ্রে আরও জীবন নাশ বন্ধ করতে এই পদক্ষেপ চালু করা হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়াতে ইউ এন এইচ সি আর-এর সাথে নিবন্ধীকরণ

ইন্দোনেশিয়া থেকে রেফিউজি পুনঃর্বাসনের ক্ষেত্রে নিয়মগুলোতে অস্ট্রেলিয়ান সরকার পরিবর্তন করেছে।

আপনি ১লা জুলাই ২০১৪ বা তার পরে ইন্দোনেশিয়াতে ভ্রমণ করলে এবং ইন্দোনেশিয়াতে ইউ এন এইচ সি আর-এর সাথে নিবন্ধীকরণ করলে আপনাকে অস্ট্রেলিয়াতে পুনঃর্বাসনের জন্য বিবেচনা করা হবে না।

১লা জুলাই ২০১৪ সালের পূর্বে ইন্দোনেশিয়াতে ইউ এন এইচ সি আর-এর সাথে নিবন্ধনকৃত ব্যক্তিদের জন্য অস্ট্রেলিয়া কর্তৃক অর্পিত পুনঃর্বাসনের স্থানের সংখ্যাতেও হ্রাস ঘটানো হয়েছে।

এই নিয়ম সবার জন্য প্রযোজ্য। এর কোনও ব্যতিক্রম নেই।

ফ্যাক্টশিট বা সত্যপত্র